ফুলবাড়ীতে যৌতুকের দায়ে নির্যাতন করায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা

0
458

এস এম নাজিব, ফুলবাড়ী দিনাজপুর প্রতিনিধি:ফুলবাড়ীতে ব্যবসায়ীর মেয়ে মোছাঃ ম্যানিল্যা আক্তার লাকীকে যৌতুকের দাবিতে মারপিটের ঘটনায় স্বামীর মোঃ মনিরুজ্জামান এর বিরুদ্ধে ফুলবাড়ী থানায় স্ত্রীর নারী নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার রাজারমপুর ফকির পাড়া গ্রামের মনিরুজ্জামান মনির এর স্ত্রী মোছাঃ ম্যানিলা আক্তার লাকী গত ৩০.০৫.২০১৯ ইং তারিখে ফুলবাড়ী থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়। গত ২০০৫ সালের ১২ এপ্রিল তারিখে শিবনগর ইউপির রাজারামপুর ফকিরপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোনের এর পুত্র মোঃ মনিরুজ্জামান মনির এর সাথে মুসলিম শরিয়ত মোতাবেক বিবাহ হয়। বিবাহের পর মনিরুজ্জামান মনির এর সাথে স্ত্রী হিসাবে ঘর সংসার করে আসছে। এর মধ্যে তাদের পরিবারে দুটি কণ্যা সন্তান জন্ম গ্রহন করেন। বিবাহের পর ব্যবসা করা অজুহাতে মোঃ মনিরুজ্জমান মনির এর স্ত্রী ম্যানিলা আক্তার লাকী পিতার নিকট থেকে ২০ লক্ষ টাকা এনে দেন।

পরিবারের দুটি বাচ্চা জন্ম হওয়ার পর থেকে তা স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন তাকে নানা রকম মারপিট ও মানষিক নির্যাতন করে আসছে। তার স্বামী একজন বেকার ও নেশাখোর ইতি পূর্বে পিত্রালয় থেকে টাকা পয়শা এনে দিলে জুয়া ও নেশা করে শেষ করে । গত ২৪/০৫/২০১৯ ইং তারিখে শুক্রবার দুপুর ২টায় স্বামী মনিরুজ্জামান মনি, শাশুড়ি ও দুই ননদ ম্যানিলা আক্তার লাকীকে পিত্রালয় থেকে ২৫ লক্ষ টাকা যৌতুক স্বরুপ আনতে বলে, সে টাকা আনতে অস্বীকৃতি জানালে সে প্রতিবাদ করে। এ মধ্যে মোছাঃ মরিয়ম বেগম (৫৮) স্বামী আনোয়ার হোসেন, ননদ মোছাঃ শাহিন আরা (৪০), স্বামী মোঃ মোন্নাফ শাহ, রায়হানা শিউলি (৩৭) স্বামী রেজাউল করিম, তারা দলবদ্ধ হয়ে তাকে বেধম মারপিট করে মারাত্বক আহত করে এবং হত্যার চেষ্টা করে।

ম্যানিলা আক্তার লাকীকে আহত অবস্থায় বাড়ীর বাহিরে ফেলে রাখলে তার বড় মেয়ে মোবাইল ফোনে ম্যানিলা আক্তার লাকীর পিতা মোঃ নবীউল ইসলাম কে খবর দিলে স্থানীয় সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নাজিম উদ্দীন, ফুলবাড়ী পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোঃ মামুনুর রশিদ চৌধুরী ও মোঃ সামিউল চৌধুরী ম্যানিলা আক্তার লাকীর শশুরবাড়ীতে যায়। সেখান থেকে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তার পিতার বাড়ীতে আনেন। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গত ২৪/০৫/২০১৯ ইং তারিখেএ ভর্তি করেন। সেখানে ৩ দিন চিকিৎসা নেওয়ার পর শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে গত ২৬/০৫/২০১৯ ইং তারিখে দিনাজপুর এম রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে চিকিৎসা গ্রহন করেন।

চিকিৎসা শেষে ম্যানিলা আক্তার লাকী গত ৩০/০৫/২০১৯ ইং তারিখে ৪ জনকে আসামী করে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধন/০৩) এর ১১ (গ) ৩০ ধারায় মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং-১৯। তারিখ-৩০/০৫/২০১৯ ইং। এ দিকে স্বামী ও তার পরিবারের নির্যাতনের সুষ্ট বিচার কামনা করেছেন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে। এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফখরুল ইসলাম এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, দুইজন কে আটক করা হয়েছে এবং বাকি দুইজন পলাতক রয়েছে। মামলার তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।