গায়ে পড়ে যুদ্ধ লাগাবেন না, তাহলে শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত লড়াই করব |

0
64

পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেতা ও সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী রাজা পারভেজ আশরাফ বলেছেন, ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ চায় না পাকিস্তান, তবে যদি গায়ে পড়ে যুদ্ধ লাগানো হয়; তাহলে রক্তের শেষ বিন্দু থাকা পর্যন্ত তারা লড়াই করবেন।

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পার্লামেন্টে যৌথ এক অধিবেশনে চলমান পাক-ভারত উত্তেজনা নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে এই হুঁশিয়ারি দেন তিনি। রাজা পারভেজ বলেন, পুরো জাতির আবেগের প্রতিফলন ঘটছে পার্লামেন্টে। আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তির ঘোষণা শান্তির জন্য পাকিস্তানের আরেকটি ইতিবাচক পদক্ষেপ।

সাবেক এই পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেউ যদি পাকিস্তানের সার্বভৌমত্বকে চ্যালেঞ্জ করে তাহলে সেটির জবাব পুরোদমে দেবেন তারা। পাকিস্তান যুদ্ধ চায় না, কিন্তু যদি যুদ্ধ লাগানো হয়; তাহলে আমরা শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত লড়াই করবো।

রাজা পারভেজ বলেন, পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী বিপুল শ্রদ্ধা পাওয়ার যোগ্য। আমাদের বাহিনী ভারতের আগ্রাসনের জবাব দিয়েছে। একই সময়ে উত্তেজনার তীব্রতা এড়িয়েছে। তিনি বলেন, পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুটি দেশের মুখোমুখি লড়াই বিশ্ব শান্তির জন্য বিপজ্জনক।

তিনি অারো বলেন, বরং পাকিস্তানই সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়েছে এবং হাজার হাজার মানুষ তাদের প্রাণ উৎসর্গ করেছে। রানা পারভেজ বলেন, যুদ্ধ নিজেই একটি সঙ্কট, এটি আরেকটি সঙ্কটের সমাধান করে না। আমাদের মতো কেউই এতটা আত্মোৎসর্গ করেনি।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় কেন্দ্রীয় আধা-সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) গাড়ি বহরে জঙ্গি হামলায় ৪০ জওয়ানের প্রাণহানি ঘটে। এ ঘটনার দায় স্বীকার করে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ। মঙ্গলবার পুলওয়ামা হামলার জবাবে পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে জয়েশের ঘাঁটিতে ভারতীয় বিমানবাহিনী অভিযান চালিয়ে ৩০০ জঙ্গিকে হত্যার দাবি করে ভারত। এই অভিযানের একদিন পর বুধবার দুই দেশের আকাশসীমায় পাল্টাপাল্টি বিমান অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটে।

পাকিস্তান বলছে, তারা ভারতীয় বিমানবাহিনীর দুটি বিমান ভূপাতিত এবং একজন পাইলটকে আটক করেছে। ভারতের দাবি, তারাও পাকিস্তানের একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জানায়, পাকিস্তানি অনুপ্রবেশ ঠেকানোর সময় ভারতীয় একটি মিগ-২১ যুদ্ধবিমান ও পাইলট নিখোঁজ হয়েছে।

ইসলামাবাদে আটক ভারতীয় পাইলটকে শুক্রবার মুক্তি দেয়া হবে বলে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে জরুরি এক অধিবেশনে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তার এই ঘোষণার পর ভারতীয় বিমানবাহিনী বলছে, পাইলট অভিনন্দন বর্তমানের মুক্তি জেনেভা কনভেনশনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here