কাকরাইল থেকে যে সব মূল্যবান জিনিস চুরি করেছে সাদের অনুসারীরা

0
70

কাকরাইলে দুই সপ্তাহের রাজত্ব করে কাকরাইলের অনেক টাকা সহ মূল্যবান সামানা হাতিয়ে নিয়েছে সাদের অনুসারীরা

কাকরাইলের মুরুব্বিরা জানান, সাদ পন্থীদের ১৪দিন ( ১, ২, ১৯ থেকে ১৪, ২, ১৯) পর্যন্ত সময়ে নিম্নলিখিত জিনিসপত্র পাওয়া যাচ্ছে না।

বিদেশী খানার কামরা থেকে
১. ষ্টিলের বড় রাইস প্লেট = ৬৫০টি
২. ষ্টিলের ছোট প্লেট = ৪৫০টি
৩. মেলামাইনের হাফ প্লেট = ৪০০টি
৪. চা বানানোর ছোট বড়
পাতিলসহ সমগ্র সামানা = নেই
৫. চা কাপ = ৩০০পিস
৬. সসপেন বড় ছোট = ৭টি
৭. দস্তর খানা (১০০ফিট) = ১০টি
৮. সিরামিকসের দামী প্লেট = ৫০টি
৯. রোটি তৈরির খাটি = ৩০০টি

মেইন ষ্টোর মসজিদ বিছ তলা
১. কাপড়ের ভোল = ১টি
২. কম্বল =১০০পিস
৩. নতুন পাতিল(বড়) = ৮টি
৪. পর্দার কাপড় = ৮০পিস
৫. বালতি = ২০টি
৬. অন্যান্য অনেক পুরনো
জিনিস পত্র নেই

ফরেন টেস্ট (খিমা) ( আরব ইংরেজী উর্দু)
ইংলিশ খিমায় একটি ঘরি ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে।
হারিয়েছে, ১টি মাঝারি ট্রাংক, ৪টি চেয়ার, ৪টি দেয়াল ঘড়ি, ৩টি তালা ভেঙে দেওয়া হয়েছে।

একজন থাইল্যান্ড মেহমানের (আলেম) ২০ হাজার টাকার কিতাব হারানো গিয়েছে। এছাড়া ২ লক্ষ টাকার ঔষধ পাওয়া যাচ্ছে না।

এনিয়ে নতুন কোন সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা জানতে চাইলে মুরুব্বিরা যুবকণ্ঠকে জানান, অচিরেই এর একটা ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সেটা মাশোয়ারার পর জানানো হবে।

এর আগে সাদ পন্থীদের রিজার্ভ এর ৭৫,০০০ হাজার টাকার হিসাব নেই। বিদেশী খানার কামরার ৬০০০০০ টাকা খরচ করে,দু সাপ্তাহে, ইন্জিয়ার মাহফুজের রুমের তালা ভেঙ্গে ভিবিন্ন কাগজপত্র ( জরুরী) নিয়ে গেছে প্রায় তালাগুলির নকল চাবি বানিয়েছে, মাওঃ যুবায়ের সাহেব (দাঃবাঃ) এর পানের বাটা এবং পিক দানি নেওয়ার সময় এক এতায়াতি হাতেনাতে পাকড়াও হয় পরে চোরকে প্রশ্ন করা হলে উত্তর দেয় বরকতের জন্য পিকদানি চুরি করছি ৷ এই হলো কাকরাইলের অবস্তা।

সকাল ৭ টায় কাকরাইল যাওয়ার পর দেখা যায়, যারা নাদান( যারা ওলামাদের বুঝ এর কাছে নতি স্বীকার করেছে ) এমন অনেক ভাইরা কাকরাইলে ঢুকছে।

টঙ্গি থেকেও ৪ টি গাড়িতে করে নজমের সাথিরা কাকরাইলে চলে আসলেন। যারা ২ সপ্তাহ ধরে টঙ্গির নজমে কাজ করছিলেন। তারা জার জার নজমে চলে গিয়েছেন, পরিস্কারও শুরু করে দিয়েছে অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here