এমসি কলেজে বইমেলা ২৭ ফেব্রুয়ারি শুরু

0
112

সৈয়দ জুনাইদ আযহারী সিলেট :: গত ২০-২১ ও ২২ ফেব্রুয়ারির স্থগিত হওয়া এমসি কলেজ বইমেলার নতুন তারিখ ঘোষণা করেছে কলেজ প্রশাসন।

শনিবার দুপুরে কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আগামী ২৭- ২৮ ফেব্রুয়ারি ও ১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে ২০১৯ সালের এই গ্রন্থমেলা।

ভাষার মাস ফেব্রুয়ারি কে কেন্দ্র করে সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের অন্যতম সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন মুরারিচাঁদ কবিতা পরিষদ (মুকপ) টানা তৃতীয় বারের মত একুশে বইমেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে।

বইমেলা উপলক্ষে কবিতা পরিষদের কক্ষে রংতুলির আবহে ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন, বর্ণমালাসহ যাবতীয় সরঞ্জাম তৈরিসহ প্রায় সবরকমের প্রস্তুতি শেষ করছে একুশের চেতনা হৃদয়ে ধারণকারী মুপকের এসব সদস্যরা।

স্থগিত হওয়ার কারণে আদৌ মেলা হবে কিনা এই নিয়ে সবার মধ্যে একটা হতাশা কাজ করলেও কলেজ প্রশাসনের নতুন তারিখটি ঘোষণার পরই সবুজ ক্যাম্পসের বুকে মুকপের এমন আয়োজন কে ঘিরে এমসি শিক্ষার্থীদের মধ্যে নবরূপেই উৎফুল্লতা দেখা যাচ্ছে।

এ নিয়ে কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী দুর্জয় মালাকার রিংকু বলেন, স্থগিত হওয়ার ঘোষণাটি শোনার পর সত্যিই খুব খারাপ লাগছিল, কিন্তু কলেজ প্রশাসনের নতুন ঘোষণার পর নিজ কলেজের বইমেলা হচ্ছে, বিষয়টা ভাবতেই অনেক ভাল লাগছে।
রিংকু বলেন, মুপকের এমন আয়োজন নিঃসন্দেহে শিক্ষার্থীদের মাধে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির প্রতি আরো বেশি আবেগী হতে দিকপাল হিসেবে কাজ করবে বলে মনে করি।

মেলার সার্বিক প্রস্তুতি সম্পর্কে আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কবি সুমন চন্দ্র পাল বলেন, নতুন তারিখ অনুযায়ী মেলাটি যেহেতু মাসের শেষ দিকে হচ্ছে। তাই আশা করছি এবারের মেলায় দোকানের সংখ্যা ও বেশি হবে। আর সে হিসেবে মেলায় ক্রেতাদের সংখ্যা ও বেশি হবে বলে ধারণা করা যাচ্ছে। কেননা এই তারিখে সিলেট সদরে একমাত্র এমসি কলেজেই বইমেলা হবে। ‘বরাবরের মতো আমাদের এই আয়োজনে কলেজ প্রশাসনসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলো এবারও শতভাগ ইতিবাচক। যেকারণে ক্যাম্পাসেও শান্তি পূর্ণ একটা অবস্থা বিরাজ করছে।

সুমন বলেন, চেষ্টা করছি নতুন কিছু নিয়ে আসার জন্য, যার ফলে মেলাটি আরো বেশি প্রাণবন্ধ হতে পারে। মুকপ সভাপতি আরো বলেন, “মেলায় প্রতিদিনই সাহিত্য বিষয়ক আলোচনা থাকবে, সাথে বাউল গানও। এছাড়া প্রতিদিন ক্যাম্পাসের অন্যান্য বন্ধুপ্রতিম সংগঠনগুলোও বিনোদনের মাধ্যমে মঞ্চ মাতিয়ে রাখবে।”

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সজল মালাকার জানান, “আমাদের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। আমি চাই সকল মুরারিয়ানরা যেনো এ মেলাকে সফল করার জন্য অতীতের মতো এবার ও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। কেননা এ মেলা মূলত সকল মুরারিয়ানদের প্রাণের মেলা।”

এসময় তিনি, মেলার শেষ দিন মুরারিচাঁদ কবিতা পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত ৬ষ্ঠ কুইজ প্রতিযোগিতা ‘৫২ প্রশ্নে ২১ পুরস্কার’ এর পুরস্কার বিতরণ করা হবে বলে জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here